৪ তারিখ নিউজিল্যান্ডে অনুশীলনে নামবে টাইগাররা

নিজস্ব প্রতিনিধি

0

নিউজিল্যান্ডে নির্ধারিত সময় থেকে দুই দিন পিছিয়ে ৪ মার্চ অনুশীলনে নামছে টাইগাররা। এ সময়ে কয়েক টিমে ভাগ হয়ে নির্দিষ্ট সময়ে অনুশীলন করতে পারবে তাঁরা।

টাইগাররা দেশের মাটিতে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ম্যাচ শুরু করেছিল গত মাসে। ওয়ানডেতে বাংলাওয়াশের পর, টেস্টে ওয়েস্ট ইন্ডিজের কাছে নাকানি চুবানি খায় টাইগাররা। তবে এবার বিদেশের মাটিতে ভিন্ন উইকেটে আরো বেশি চ্যালেঞ্জ থাকবে টাইগারদের জন্য।

করোনা মহামারীর কারণে নিউজিল্যান্ডে গিয়ে আট দিন নিজ কক্ষে সেলফ কোয়ারেন্টাইন এ থাকতে হচ্ছে তাঁদের। এসময় রুমের ভিতর বন্দী অবস্থায় থাকতে হলেও ৪৮ ঘন্টা পর নির্দিষ্ট সময়ের জন্য কয়েকজন করে রুমের বাইরে বেরোতে পেরেছিল ৩০ মিনিটের জন্য। এসময়ে তাঁরা কড়া স্বাস্থ্যবিধি মেনে মাস্ক পরে ২ মিটার দূরত্বে অবস্থান করে সতীর্থদের সাথে কথা বলতে পেরেছেন।

প্রস্তুতি পর্ব শেষে ২০ মার্চ প্রথম ওয়ানডে দিয়ে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ খেলা শুরু হবে নিউজিল্যান্ডের মাটিতে। তিন ম্যাচের ওয়ানডে ও তিন ম্যাচের টি২০ সিরিজ আছে। ২০ মার্চ প্রথম ওয়ানডের পর ২৩ ও ২৬ মার্চ যথাক্রমে দ্বিতীয় ও তৃতীয় ওয়ানডে ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে। এরপর ২৮, ৩০ মার্চ ও ১ এপ্রিল যথাক্রমে প্রথম, দ্বিতীয় ও তৃতীয় টি২০ ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে।

নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজটি ২০২৩ সালের ওয়ানডে বিশ্বকাপের সুপার লীগের সিরিজ। বাংলাদেশ দল এরইমধ্যে সুপার লীগের একটি সিরিজে তিনটি ম্যাচ খেলেছে। যেখানে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে হোয়াইটওয়াশ করে তিনটিতে জিতে ৩০ পয়েন্টও জোগাড় করেছে। সরাসরি বিশ্বকাপে খেলতে হলে সুপার লীগের পয়েন্ট তালিকায় সেরা আটে থাকতে হবে।

তবে তা নিউজিল্যান্ডের মাটিতে ব্ল্যাক ক্যাপসদের হারাতে নিজেদের সর্বোচ্চটুকু দিতে হবে বলে অধিনায়ক তামিম ইকবাল বলেন,

“বাংলাদেশ টিমের সে সামর্থ্য রয়েছে, আমরা যদি সবাই নিজেদের সেরাটা দিতে পারি, প্ল্যান অনুযায়ী খেলতে পারি আমরা যেকোন টিমকে হারাতে পারবো। আমি এবং আমার টিমের সবাই এটি বিশ্বাস করে। আমরা সবাই তাই আশাবাদী”।