মুক্তিযোদ্ধা যাচাই-বাছাই শেষে ২ হাজার ৮৩৪ জনের নাম বাদ যাচ্ছে

বিশেষ প্রতিনিধি

0

 

জাতীয় মুক্তিযোদ্ধা কাউন্সিল (জামুকা) সুপারিশ ছাড়া ২০০২ থেকে ২০১৩ পর্যন্ত ‘বেসামরিক গেজেট’ এ ৩৯ হাজার ২৪৫ জনের নাম বীর মুক্তিযোদ্ধাদের তালিকায় অন্তর্ভুক্ত করা হয়। পরে তাঁদের সনদ নিয়ে প্রশ্ন ওঠায় গত বছর যাচাই–বাছাইয়ের সিদ্ধান্ত নেয় জামুকা।

এর প্রেক্ষিতে এ বছরের জানুয়ারি ও ফেব্রুয়ারিতে দুই দফায় যাচাই–বাছাইয়ের পর ওই গেজেট থেকে ২ হাজার ৮৩৪ জনের নাম বাদ দেওয়ার সুপারিশ দেয় জামুকা।

দেশের ৩৭৬ উপজেলায় যাচাই–বাছাইয়ের কাজ শেষ হলেও ১১৪ উপজেলা থেকে এখনে কোনো প্রতিবেদন আসেনি। যেসব উপজেলা থেকে যাচাই–বাছাই সংক্রান্ত প্রতিবেদন আসেনি, সে বিষয়ে আজ রোববার জামুকার বৈঠকে সিদ্ধান্ত হতে পারে।

মহাপরিচালক জহুরুল ইসলাম জানান, যাচাই–বাছাইয়ে ১৬ হাজার ৬৯১ জনের নাম বীর মুক্তিযোদ্ধা হিসেবে অন্তর্ভুক্ত করার সুপারিশ পেয়েছেন তাঁরা। আর নাম বাদ দিতে সুপারিশ এসেছে ২ হাজার ৮৩৪ জনের। অন্যদের বিষয়ে এখনো কোনো প্রতিবেদন আসেনি।

মুক্তিযুদ্ধের আদর্শ সমুন্নত এবং বীর মুক্তিযোদ্ধা ও তাঁদের পরিবারের কল্যাণ নিশ্চিত করতে ২০০২ সালে আইন করে জামুকা। এ আইনে বলা আছে, ‘প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধাদের তালিকা প্রণয়ন, সনদ ও প্রত্যয়নপত্র প্রদানে এবং জাল ও ভুয়া সনদ ও প্রত্যয়নপত্র বাতিলের জন্য সরকারের কাছে সুপারিশ পাঠাবে জামুকা।’

 

সূত্র – প্রথম আলো