আমার ভাই ২৯ লক্ষ কর্মকর্তা-কর্মচারীর মাস্টার ছিল ৫ বছর

উখিয়া হলদিয়া পালং ইউপি চেয়ারম্যান

0

কক্সবাজারের উখিয়া হলদিয়া পালং ইউপি চেয়ারম্যান শাহ আলমের একটি বক্তব্য সম্প্রতি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে। ওই বক্তব্যে তিনি জনসম্মুখে বলেন, কাউকে মনোনয়ন নিতে দিব না, নিতে পারলে আমি পারব! ভোট চুরি করলে নৌকা মার্কার মানুষ পারবে। আমার ভাই ২৯ লক্ষ কর্মকর্তা-কর্মচারীর মাস্টার ছিল ৫ বছর।

পুলিশকে সরকারী গুন্ডা আখ্যা দিয়ে তিনি বলেন
পুলিশ সাধারণ মানুষকে পিটিয়ে পিটিয়ে আমাকে ভোট দিতে বাধ্য করবে।

গতকাল ১৭ মার্চ সন্ধ্যা ৭ টার দিকে হলদিয়া পালং ইউনিয়নের ৭ নং ওয়ার্ডে  আসন্ন নির্বাচন উপলক্ষে পথসভায় বক্তৃতা রাখেন ইউপি চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ শাহ আলম।

তিনি বলেন, আমার ভাই (সাবেক মন্ত্রী পরিষদ সচিব শফিউল আলম) যিনি ঢাকায় ছিল তিনি এখন ঢাকায় নাই। তিনি এখন যুক্তরাষ্ট্রের ওয়াশিংটনে বিশ্ব ব্যাংকে বাংলাদেশ, ভারত, শ্রীলংকা, ভুটান, নেপাল এই পাঁচটি দেশের প্রতিনিধিত্ব করছেন।

আমার ভাই যে সেটআপ করে গেছে এদেশে, যে ক্ষমতার স্তর তৈরী করে গেছে। তিনি বাংলাদেশের ২৯ লক্ষ কর্মকর্তা- কর্মচারীর ওপর মাস্টারি করেছেন পাঁচ বছর। তার সৈনিকরা দেশের বিভিন্ন স্তরে বসানো আছে, আগামী ১০ বছর তারা দেশ পরিচালনা করবে। যারা বলে আমার ক্ষমতা চলে গেছে তারা আসলে বোকার স্বর্গে বাস করছে।

এই বক্তব্যের বিষয়ে ইউপি চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ শাহ আলমের সাথে যোগাযোগ বললে তিনি তার বক্তব্য অস্বীকার করে বলেন, গতকাল সারা দিন আমি কোনো বক্তব্য রাখিনি, সারাদিন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে বিভিন্ন অনুষ্ঠানে ব্যস্ত ছিলাম। এসব আমার নামে অপপ্রচার।

তিনি দাবি করেন, বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে ও কোনো বক্তব্য জনসম্মুখে পেশ করেননি।

এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার নিজাম উদ্দীন আহমেদ এর সাথে যোগাযোগ করলে তিনি বলেন, এবিষয়টা এখনো আমাদের নজরে আসেনি। নজরে আসলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

মোবাইলে ধারণ করা ভাইরাল ভিডিওঃ