হাটহাজারীতে হেফাজত-পুলিশের সংঘর্ষ, নিহত ৪

0

চট্টগ্রামের হাটহাজারীতে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি সফরকে কেন্দ্র করে হেফাজতে ইসলামের নেতাকর্মী ও পুলিশের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনায় চারজন নিহত হয়েছেন। নিহতদের মধ্যে তিনজন মাদরাসা ছাত্র এবং একজন পথচারী।

চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল (চমেক) পুলিশ ফাঁড়ির এএসআই আলাউদ্দিন তালুকদার বিকেল সাড়ে ৪টায় এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

আজ ( ২৬ মার্চ) দুপুরে জুমার নামাজের পর স্বাধীনতার সুবর্নজয়ন্তী উপলক্ষে প্রধান অতিথি হিসেবে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির আগমনের বিরোধীতা করে বিক্ষোভ করে হেফাজতে ইসলামের নেতারা। এক পর্যায়ে ছাত্ররা থানার সামনে গিয়ে হঠাৎ ইট-পাটকেল নিক্ষেপ শুরু করে। থানার সামনে লাগানো স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীর ব্যানার ছিঁড়ে ফেলে। ছাত্রদের ছোঁড়া ইট-পাথরের টুকরায় থানার সামনের কাচের দরজা ভেঙে যায়। বিভিন্ন আসবাবপত্র ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

 

এ সময় পুলিশ প্রথমে টিয়ারশেল ছুড়ে তাদের ছত্রভঙ্গ করার চেষ্টা করে। একপর্যায়ে পুলিশ রাবার বুলেট ছোড়ে। এতে সংঘর্ষ আরও বাড়লে পুলিশ গুলি ছোড়ে। এতে চারজন নিহ ত ও অর্ধ শতাধিক মাদ্রাসার শিক্ষার্থী আহতের খবর পাওয়া যায়। এ ঘটনার পর ছাত্ররা মাদরাসার সামনে অবস্থান নিয়ে চট্টগ্রাম-খাগড়াছড়ি সড়ক অবরোধ করে রেখেছে বলে জানা যায়।

হাটহাজারী থানার অফিসার ইনচার্জ রফিকুল ইসলাম বলেছেন, “হেফাজত অনুসারীরা নরেন্দ্র মোদীর সফরের প্রতিবাদ করে মিছিল করার চেষ্টা করেছিল, পুলিশের বাধা পেয়ে তারা হাটহাজারী থানায় প্রবেশ করে ব্যাপক ভাঙচুর চালায়।”

চট্টগ্রাম  ছাড়াও জুম্মার নামাজের পর রাজধানীর বায়তুল মোকাররম মসজিদ প্রাঙ্গণে কয়েক শতাধিক বিক্ষোভকারী পুলিশ ও ক্ষমতাসীন দলের সদস্যদের সাথে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে।