পবিত্র কোরআনের ২৬ আয়াতের বিরুদ্ধে করা রীট খারিজ করেছে ভারতের সুপ্রিম কোর্ট

0

ভারতের শিয়া ওয়াকফ বোর্ডের সাবেক চেয়ারম্যান ওয়াসিম রিজভীর পবিত্র কোরআন শরিফের ২৬টি আয়াত পরিবর্তনের আবেদন খারিজ করেছে দেশটির সুপ্রিম কোর্ট।

বিচারপতি রোহিটন ফালি নরিমানের নেতৃত্বে সুপ্রিম কোর্টের একটি বেঞ্চ তার কাছে এই অযুক্তিক আবেদনটির জন্য এবং এসসি’র মূল্যবান সময়কে অপচয় করার জন্য ৫০ হাজার রুপি জরিমানা করেন।

সৈয়দ ওয়াসিম রিজভী সুপ্রীম কোর্টের কর্তৃপক্ষের কাছে পবিত্র কুরআন থেকে ২৬টি আয়াত অপসারণের জন্য আবেদন করেন। তার ভাষ্যমতে, ইসলামপন্থী সন্ত্রাসবাদী দলগুলো এই আয়াতগুলো ‘আত্মপক্ষ সমর্থনকারী’ হিসেবে ব্যবহার করে অবিশ্বাসী ও বেসামরিক নাগরিকদের উপর হামলার করে।

রিজভী তার পিটিশনে বলেন, তার মতে পবিত্র কুরআনে বর্ণিত যেসব আয়াত বা সূরাহ দেশের আইন লঙ্ঘনকে উস্কে দিতে পারে বা উগ্রবাদ ও সন্ত্রাসবাদের প্রচার ঘটাতে পারে আদালত সেসব যথাযথ রিট, দিকনির্দেশনা বা আদেশের সদ্ব্যবহার করে পিটিশনারের প্রতি জনস্বার্থে রায় দিতে পারেন।

রিজভী আদালতের নিকট আরও আবেদন রাখেন যে, বৃহত্তর জনস্বার্থের কল্যাণে যেকোনো উপযুক্ত বিশেষজ্ঞ কমিটি অথবা কোনো ধর্মীয় বিশেষজ্ঞরা তার পিটিশনে নিযুক্ত হয়ে তার মতামতটি গুরুত্ব সহকারে বিবেচনা করে দেখবেন।

পিটিশনটি নিম্নলিখিত আয়াতগুলিকে বোঝায়:

সূরা ৫ এর আয়াত ৯ ; সূরা ২৮ এর আয়াত ৯; সূরা ১০১ আয়াত ৪; সূরা ১২৩ এর আয়াত ৯; সূরা ৫৬ আয়াত ৪; সূরা ২৩ আয়াত ৯; সূরা ৩৭ এর আয়াত ৯; সূরা ৫৭ এর আয়াত ৫ ; সূরা ৬১ এর আয়াত ৩৩; সূরা ৯৮ এর আয়াত ২১; সূরা ২২ এর আয়াত ৩২; সূরা ২০ এর আয়াত ৪৮; সূরা ৬৯ এর আয়াত ৮; সূরা ৯ এর আয়াত ৬৬; সূরা ২৭ এর আয়াত ৪১; সূরা 28 এর আয়াত ৪১; সূরা ১১১ এর আয়াত ৯; সূরা ৫৮ এর আয়াত ৯; সূরা ৬৫ এর আয়াত ৮; সূরা ৫১ এর আয়াত ৫; সূরা ২৯ এর আয়াত ৯; সূরা ১৪ এর আয়াত ৫; সূরা ৮৯ এর আয়াত ৪ ; সূরা ১৪ এর আয়াত ৯; সূরা ১৫১ এর আয়াত ৩; সূরা ১৯১এর আয়াত ২।

আল-কোরআনের ২৬ আয়াত বাতিল চেয়ে ভারতের উচ্চ আদালতে রিট এর প্রতিবাদে তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে বাংলাদেশের সর্বোচ্চ আদালত সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবীরা বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করেছিল ১৮ মার্চ।

সূত্র – LIVELAW