গাজায় বিমান হামলা নিয়ে যা বললেন ইসরাইল

0

ফিলিস্তিনের গাজা উপত্যকায় আজ আবার বিমান হামলা চালিয়েছে ইসরায়েল। ২৫ দিন শান্ত থাকার পর আবার এই হামলা হলো। আজ বুধবার সকাল থেকে হামাসের বিভিন্ন স্থাপনা লক্ষ্য করে বিমান হামলার কথা জানিয়েছে তেল-আবিব। তাৎক্ষণিক হতাহতের সংখ্যা জানা যায়নি। খবর বিবিসি ও আল-জাজিরার।

 

এর আগে মঙ্গলবার সকালে গাজা থেকে ইসরায়েলের দক্ষিণাঞ্চলের দিকে ডিভাইসযুক্ত গ্যাসীয় বেলুন পাঠানো হয় অভিযোগ করেন ইসরায়েলের সামরিক বাহিনী । ইসরায়েলের ফায়ার সার্ভিস জানিয়েছে, ওই বেলুনের কারণে সেখানকার বেশ কিছু স্থানে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। ২০টির মতো বেলুন গাজা সীমান্তবর্তী এলাকায় ভূপাতিত করা হয়।

 

ইসরাইলি সেনাবাহিনী এক বিবৃতিতে জানায়, তারা হামাসের কম্পউন্ডগুলোতে হামলা চালিয়েছে। ইসরাইল জানায়, আবার হামলা চালানোসহ সব ধরনের পরিস্থিতির জন্য তারা তৈরী রয়েছে। বেলুন উড়ানোর প্রতিক্রিয়া হিসেবে এই হামলা চালানো হয়েছে বলেও জানানো হয়।

 

ফিলিস্তিনি সূত্রগুলো সংবাদ সংস্থা এএফপিকে জানায়, হামলার অন্যতম টার্গেট ছিল খান ইউনিসের একটি স্থাপনা। হামাসের মুখপাত্র রয়টার্সকে জানিয়েছেন, ফিলিস্তিনিরা তাদের সাহসী প্রতিরোধ চালিয়ে যাবে, জেরুসালেমের ওপর তাদের অধিকার ও পবিত্র ভূমিগুলো রক্ষার চেষ্টা চালিয়ে যাবে।

গত ২১ মে গাজায় হামাস ও ইসরাইলের মধ্য যুদ্ধবিরতির পর এটাই বড় ধরনের বিমান হামলা। ১১ দিনের ওই যুদ্ধে ইসরাইলি হামলায় অন্তত ২৫৬ জন ফিলিস্তিনি নিহত হয়। এদের মধ্য অন্তত ৬৬ জন শিশু। আর হামাসের রকেট হামলায় ১২ ইসরায়েলি নিহত হয়।

সূত্র : আল জাজিরা।