মোবাইলে টিকটকার, বাস্তবে ছিনতাইকারী!

0

চট্টগ্রাম নগরীতে ছিনতাইয়ে জড়িত থাকার অভিযোগে এক নারীকে গ্রেফতার করা হয়েছে। পুলিশ জানিয়েছে, ছয়দিন আগে একাধিক ছিনতাই মামলার আসামি তার স্বামীকে গ্রেফতার করা হয়েছিল। স্বামীর দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে তার স্ত্রীকেও গ্রেফতার করা হয়।

শুক্রবার (৩০ জুলাই) রাতে নগরীর ডবলমুরিং থানার আগ্রাবাদ এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

গ্রেফতার হওয়া ফারজানা বেগম (৩৮) ও তার স্বামী মো. রুবেলের বাসা নগরীর দেওয়ানহাটের সুপারিপাড়া এলাকায়। তবে তারা আগ্রাবাদে আক্তারুজ্জামান সেন্টারের আশপাশে ভাসমানভাবে অবস্থান করেন বলে জানিয়েছে পুলিশ।

ডবলমুরিং থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ মহসীন জানান, উভয়ই ডবলমুরিং থানার তালিকাভুক্ত ছিনতাইকারী। রুবেলের বিরুদ্ধে ১১টি ও ফারজানার বিরুদ্ধে ৮টি মামলা আছে। সুনির্দিষ্ট মামলায় গত ২৫ জুলাই গভীর রাতে ফারজানার স্বামী রুবেলকে গ্রেফতার করা হয়। তাকে রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। জিজ্ঞাসাবাদে রুবেল জানায়— গত ১৯ জুলাই নগরীর কোতোয়ালী থানার আন্দরকিল্লা মোড়ে তারা স্বামী-স্ত্রী মিলে একটি ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটায়। তার দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে ফারজানাকে গ্রেফতার করা হয়।

ফারজানা একা চলাচলরত কোনও ছেলেকে প্রথমে টার্গেট করে। এরপর ঠিকানা জিজ্ঞেস করার নামে তাকে থামায়। থামলেই ছোরা দেখিয়ে তার কাছে থাকা টাকা ও মোবাইল দিয়ে দিতে বলে, নতুবা তার বিরুদ্ধে ইভটিজিং ও যৌন হেনস্থার অভিযোগ আনার হুমকি দেয়। এতে ভয়ে সবকিছু দিয়ে দেয় ছেলেরা। আর মেয়েদেরও ঠিকানা জিজ্ঞেস করার ভান করে থামায়। এরপর ছোরার ভয় দেখিয়ে সব ছিনিয়ে নেয়।