ড্রোন দিয়ে বৃষ্টি নামালো দুবাই

0

তীব্র গরমে হাঁসফাঁস করছে গোটা দেশ। তাপমাত্রা প্রায় ৪৬ ডিগ্রীর উপরে। এমতাবস্থায় ড্রোন দিয়ে বৃষ্টি নামিয়ে গোটা বিশ্বকে তাক লাগিয়ে দিয়েছে দুবাই।

বছরের বেশ কিছু সময় অসহনীয় মাত্রায় গরম পরেছিল সংযুক্ত আরব আমিরাতে। বিজনেস ইনসাইডার বলছে, এ সময়ে তাপমাত্রা ৪৬-৪৯ ডিগ্রী পর্যন্ত ওঠা সাধারণ ঘটনা।

এই সমস্যার সমাধান বের করেছেন আরব আমিরাতের বিজ্ঞানীরা। কৃত্রিম উপায়ে বৃষ্টি নামানোর উদ্যোগ নিয়েছেন আরব তারা।

ভ্যানগার্ডের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, দুবাইয়ে ড্রোনের সাহায্যে মেঘের মধ্যে বৈদ্যুতিক চার্জ সরবরাহ করা হচ্ছে। আর তাতেই জলকণা ঘনীভূত হয়ে বৃষ্টি ঝরছে।

বিজ্ঞানীরা নতুন যে প্রক্রিয়ায় কৃত্রিম বৃষ্টি নামিয়েছেন সেটি নতুন সম্ভাবনা তৈরি করছে গোটা বিশ্বের জন্য।

এই কৌশলটিকে ‘ক্লাইড সিডিং’ বলা হয়।‌ সংযুক্ত আরব আমিরাত বার্ষিক বৃষ্টিপাত বাড়ানোর জন্য দেড় কোটি ডলারের প্রকল্প হাতে নিয়েছে। ক্লাউড সিডিং তারই অংশ।

আন্তর্জাতিক সিবিএস নিউজের এক প্রতিবেদন বলছে, আগের প্রক্রিয়াগুলোর মত পরিবেশের উপর বেশি প্রভাব না ফেলেই অনাবৃষ্টি কমাতে সহায়তার প্রতিশ্রুতি দিয়েছে নতুন প্রক্রিয়াটি। সংযুক্ত আরব আমিরাতে প্রতিবছর প্রায় ৪ ইঞ্চি বৃষ্টিপাত হয়ে থাকে। সরকার আশা করছে, মেঘে বিদ্যুৎ চার্জ ব্যবহারের মাধ্যমে বৃষ্টি তৈরি করলে তা বছরে কিছু তাপদাহ কমাতে ভূমিকা রাখবে।

ব্রিটেনের ইউনিভার্সিটি অফ রিডিংয়ের গবেষকদের তথ্য অনুসারে, সংযুক্ত আরব আমিরাতে বিজ্ঞানীরা ড্রোন ব্যবহার করে ঝড় তৈরি করেছেন প্রথমে, যা বিদ্যুতের মাধ্যমে মেঘে আঘাত হানে এতে শুরু হয় বৃষ্টিপাত। বলে রাখা ভাল, গরম প্রধান দেশে হালকা বৃষ্টি পাতে বৃষ্টির ফোঁটা অনেক সময় মাটিতে পড়ার আগেই বাষ্প হয়ে যায়।