কক্সবাজারে ২২৮টি কেন্দ্রে চলছে গণটিকা কার্যক্রম

0

কক্সবাজার জেলায় মাইক্রোপ্লেনের আওতায় গণটিকাদান কার্যক্রম শুরু হয়েছে। জেলায় ২২৮টি বুথ রয়েছে। বুথগুলোতে ৪৫ হাজার ৬০০ মানুষকে টিকা দেওয়া হবে।

আজ শনিবার (০৭ আগষ্ট) সকালে এয়ারপোর্ট পাবলিক হাই স্কুলে টিকাদান কার্যক্রমের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন জেলা প্রশাসক মো. মামুনুর রশীদ।

 

উদ্বোধনকালে তিনি বলেন, টিকার কোন সংকট নেই। বুথগুলোতে ৪৫ হাজার ৬০০ মানুষকে টিকা দেওয়া হবে।

তিনি আরো বলেন, আগামী ১৪ আগষ্ট থেকে পর্যায়ক্রমে সবাই টিকা পাবে। করোনা থেকে বাঁচতে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলুন। ঘরেই থাকুন, বিশেষ প্রয়োজনে ঘর থেকে বের হলে মাস্ক ব্যবহার করুন। সাবান ও পানি দিয়ে হাত পরিষ্কার করুন। সামাজিক ও শারীরিক দূরত্ব বজায় রাখুন।

জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক পৌর মেয়র মুজিবুর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন পুলিশ সুপার মো. হাসানুজ্জামান, সিভিল সার্জন ডা. মাহবুবুর রহমান ও কক্সবাজার পৌরসভার প্রধান নির্বাহী একেএম তারিকুল আলম।

সভাপতির বক্তব্যে পৌর মেয়র মুজিবুর রহমান বলেন, ‘কক্সবাজারে প্রতিনিয়ত বাড়ছে করোনা সংক্রমণ। করোনায় আক্রান্ত হয়ে ঝরে পড়ছে অনেক তাজা প্রাণ। এমন কঠিন পরিস্থিতিতেও করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে পরিকল্পিতভাবে নানা সচেতনতামূলক কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে কক্সবাজার পৌরসভা।’

পৌর মেয়র মুজিবুর রহমান আরও বলেন, কক্সবাজার পৌরসভার ১০টি কেন্দ্রে টিকা দেওয়া হচ্ছে। প্রায় আড়াই হাজার মানুষকে টিকা দেওয়া হবে। টিকাদান কার্যক্রম সুষ্ঠুভাবে পরিচালনা করতে স্বেচ্ছাসেবকদের পাশাপাশি ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরাও নিরলসভাবে কাজ করছে বলে জানান তিনি।