“লকডাউনের পর পৌরসভার সকল নির্মাণ কাজ শুরু হবে”

0

“কক্সবাজারকে আন্তর্জাতিক মানের আধুনিক শহরে পরিণত করতে অত্যন্ত আন্তরিক প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা” – বলেছেন পৌর মেয়র মুজিবুর রহমান।

রোববার (০৮ আগষ্ট) বিকাল ৩টায় শহরের ঝাউতলা গাড়ীর মাঠে ৩টি রাস্তা, ড্রেন নির্মাণ ও স্ট্রীট লাইট স্থাপন প্রকল্পের উদ্বোধনকালে তিনি এ কথা বলেন।

চলমান লকডাউনের পর কক্সবাজার পৌরসভার ৫৬ কিলোমিটার রাস্তা নির্মাণ কাজ শুরু হবে। এই জন্য সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে।

পৌর মেয়র মুজিবুর রহমান আরও বলেন, “রাস্তা নির্মাণের পর ঝাউতলাসহ বিভিন্ন আবাসিক এলাকাকে আদর্শগ্রাম হিসেবে গড়ে তোলা হবে। এছাড়া কলাতলী, বাহারছড়া, গাড়ীর মাঠ, নুনিয়ারছড়াসহ পর্যটন শহরকে এক রঙে রাঙিয়ে বর্ণিলভাবে সাজানো হবে। যাতে দেশী-বিদেশী পর্যটকদের কক্সবাজারের প্রতি আকর্ষণ বাড়ে।

যার নির্দেশনায় স্থানীয় সরকার বিভাগের সিনিয়র সচিব মো. হেলালুদ্দীন আহমদ নিরলসভাবে প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন, কাউন্সিলর নুরুল ইসলাম, কাউন্সিলর নাসিমা আক্তার বকুল, কক্সবাজার পৌরসভার নির্বাহী প্রকৌশলী মোহাম্মদ নুরুল আলম, উপ-সহকারী প্রকৌশলী ইঞ্জিনিয়ার টিটন দাশ, ঠিকাদার প্রতিষ্ঠান কিংফিশারের পরিচালক শাহজাহান মনির ও গিয়াস উদ্দিন।

কক্সবাজার পৌরসভার উপ-সহকারী প্রকৌশলী ইঞ্জিনিয়ার টিটন দাশ, ঝাউতলা গাড়ীর মাঠে ৩টি রাস্তা, ড্রেন নির্মাণ ও স্ট্রীট লাইট স্থাপন প্রকল্পের ব্যয় ধরা হয়েছে। আগামী ৩-৪ মাসের মধ্যে নির্মাণ কাজ সম্পন্ন করে কক্সবাজার পৌরসভাকে বুঝিয়ে দেবে ঠিকাদার প্রতিষ্ঠান কিংফিশার। নির্মাণ কাজ সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করতে তিনি এলাকাবাসীর সহযোগিতা কামনা করেছেন।

এসময় পৌর আওয়ামী লীগ নেতা এবি ছিদ্দিক খোকনসহ স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন। পরে দেশ ও জাতির সমৃদ্ধিসহ প্রকল্পের সফলতা কামনায় মোনাজাতের মাধ্যমে অনুষ্ঠানের সমাপ্তি হয়।