যুবলীগ থেকে বহিস্কার ব্যারিস্টার সুমন

0

সুপ্রিম কোর্টের আলোচিত আইনজীবী ব্যারিস্টার সায়েদুল হক সুমনকে যুবলীগের কেন্দ্রীয় আইন সম্পাদকের পদ থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে।

গত রাতে তাকে যুবলীগ থেকে অব্যাহতি দেয়ার কথা গণমাধ্যমকে জানান যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মাইনুল হোসেন খান নিখিল।

তিনি বলেন, জাতীয় স্লোগান ‘জয় বাংলা’ নিয়ে কটাক্ষ করায় ও সংগঠন বিরোধী কর্মকাণ্ডে জড়িত থাকায় তাকে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে।’

উল্লেখ্য, শরীয়তপুরের পালং মডেল থানার ওসি আক্তার হোসেন বঙ্গবন্ধুর জ্যেষ্ঠপুত্র শেখ কামালের জন্মদিনের একটি অনুষ্ঠানে ‘জয়বাংলা’ স্লোগান দেন।

ওই ওসির সমালোচনা করতে গিয়ে আইনজীবী ব্যারিস্টার সৈয়দ সায়েদুল হক সুমন গত শুক্রবার নিজ ফেসবুক থেকে লাইভে আসেন।

এসময় ব্যারিস্টার সুমন বলেন, ‘আপনারা জানেন যে গতকালকে (৫ আগস্ট) শেখ কামাল সাহেবের জন্মদিনে শরীয়তপুরের পালং থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আক্তার হোসেনের আওয়ামী লীগের দলীয় স্লোগান দেয়ার একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছে। এই জিনিসটা দেখার পর আমার কাছে মনে হয়েছে দু-একটা কথা বলা দরকার।’

সুমন বলেন, ‘আপনারা একটা জিনিস খেয়াল করে দেখেন যে, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের স্লোগান দেয়ার মানুষ কী এতই কম যে একজন ওসি সাহেবের এই স্লোগান দিতে হবে।’

যুবলীগের দায়িত্বে থাকা আইনজীবী ব্যারিস্টার সুমনের এই লাইভ ভিডিও প্রকাশ হওয়ার পর থেকে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তাকে নিয়ে সমালোচনার ঝড় ওঠে।।

ব্যারিস্টার সুমনের বাড়ি হবিগঞ্জের চুনারুঘাটে। নিজের উপজেলায়, তারপর ঢাকা কলেজ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এবং দেশের বাইরে পড়াশোনা শেষ করে বর্তমানে আইনজীবী পেশায় আছেন।

গত বছরের নভেম্বরে আওয়ামী লীগের অন্যতম সহযোগী সংগঠন যুবলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটিতে জায়গা হয় ব্যারিস্টার সুমনের। তাঁকে আইন বিষয়ক সম্পাদক করা হয়।