জুলহাজ–তনয় হত্যা মামলায় ছয় জঙ্গির মৃত্যুদণ্ড

0

পাঁচ বছর আগে রাজধানীর কলাবাগানে যুক্তরাষ্ট্রের সাহায্য সংস্থা ইউএসএআইডির কর্মকর্তা জুলহাজ মান্নান ও তাঁর বন্ধু নাট্যকর্মী মাহবুব রাব্বী তনয় হত্যা মামলায় ছয় জঙ্গির মৃত্যুদণ্ড দিয়েছেন আদালত। আর দুজনকে খালাস দেওয়া হয়েছে।

মঙ্গলবার ঢাকার সন্ত্রাসবিরোধী ট্রাইব্যুনালের বিচারক মজিবুর রহমান আলোচিত এ মামলার রায় ঘোষণা করেন।

আজ মঙ্গলবার (৩১ আগস্ট) ঢাকার সন্ত্রাসবিরোধী ট্রাইব্যুনালের বিচারক মজিবুর রহমান এই রায় ঘোষণা করেন। এর আগে গত ২৩ আগস্ট যুক্তিতর্ক উপস্থাপন শেষে ট্রাইব্যুনাল রায়ের জন্য এই দিন ধার্য করেন। একইসঙ্গে অপর দুই আসামি সাব্বিরুল হক চৌধুরী, জুনাইদ আহমদ ওরফে মওলানা জুনায়েদ আহম্মেদ ওরফে জুনায়েদকে বেকসুর খালাস দেন আদালত।

মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আসামিরা হলেন-সৈয়দ মোহাম্মদ জিয়াউল হক ওরফে মেজর জিয়া (চাকরিচ্যুত মেজর), মোজাম্মেল হুসাইন ওরফে সায়মন, আরাফাত রহমান, শেখ আব্দুল্লাহ, আসাদুল্লাহ, ও আকরাম হোসেন আবির। সবাই নিষিদ্ধ ঘোষিত জঙ্গি সংগঠন আল ইসলামের বিভিন্ন পর্যায়ের সক্রিয় সদস্য।

সংগঠনের নেতা সৈয়দ মোহাম্মদ জিয়াউল হক ওরফে মেজর জিয়ার নির্দেশে সংগঠনের সামরিক শাখার সদস্যরা এ হত্যাকাণ্ড ঘটান। তিনি পলাতক রয়েছেন।

২০১৬ সালের ২৫ এপ্রিল রাজধানীর কলাবাগানের লেক সার্কাস রোডের বাড়িতে ঢুকে জুলহাজ মান্নান ও মাহবুব তনয়কে কুপিয়ে হত্যা করে দুর্বৃত্তরা।

ওই ঘটনায় কলাবাগান থানায় জুলহাজের বড় ভাই মিনহাজ মান্নান ইমন হত্যা মামলা এবং সংশ্লিষ্ট থানার এসআই মোহাম্মদ শামীম অস্ত্র আইনে মামলা দায়ের করেন। গত বছর ১৯ নভেম্বর আলোচিত এই হত্যা মামলায় অভিযোগ গঠন করে বিচারের আদেশ দেন ট্রাইব্যুনাল। এরপর বিচার চলাকালে বিভিন্ন সময় মোট ২৪ জনের সাক্ষ্য গ্রহণ করেন আদালত।