পাওয়ার গ্রিড কোম্পানি অব বাংলাদেশ (পিজিসিবি) লিঃ এর প্রস্তুতি ও দিক-নির্দেশনা

0

যারা সহকারী এবং উপ সহকারী প্রকৌশলী পদে ইইই জব প্রিপারেশন শুরু করতে চাচ্ছেন, কিন্তু সঠিক দিকনির্দেশনা পাচ্ছেন না:তাদের জন্য জাস্ট নিজের অভিজ্ঞতা শেয়ার করলাম।
বাংলাদেশে পাওয়ার সেক্টরে যতগুলো স্বায়ত্তশাসিত কোম্পানি আছে, এইসব কোম্পানির লোকবল নিয়োগের পরীক্ষা অধিকাংশ সময় বুয়েটে হয়ে থাকে।
এখানে আমি বুয়েটে অনুষ্ঠিত পরীক্ষার প্রশ্ন প্যাটার্ন এবং এ সকল পরীক্ষার প্রস্তুতির জন্য কোন কোন বিষয় গুলোর উপরে দক্ষতা অর্জন করতে হবে,সে সম্বন্ধে কিছুটা আলোচনা করতে চাই…..
বুয়েটে সাধারণত ডিপার্টমেন্ট এবং নন ডিপার্টমেন্ট উভয় অংশ থেকে প্রশ্ন আসে।
প্রশ্নের মারকস ডিস্ট্রিবিউশনের এর প্যাটার্ন সাধারণত যে কোম্পানির পরীক্ষা তারা বলে দেয়।
PGCB,DPDC,DESCO,APSCL,EGCB,BCPCL,NWPGCL,NESCO এসব কোম্পানির পরীক্ষায় সাধারণত ডিপার্টমেন্ট 40 এবং নন ডিপার্টমেন্ট 60 মার্কস থাকে।
যার মধ্যে 20 মারকস অ্যানালিটিক্যাল অ্যাবিলিটি থাকে….
অন্যান্য কোম্পানির পরীক্ষায় সাধারণত ডিপার্টমেন্ট 50 এবং
নন ডিপার্টমেন্ট 50 মার্কসের হয়ে থাকে।
নন ডিপার্টমেন্ট সাধারণত mcq অর্থাৎ বৃত্ত ভরাট টাইপের হয়ে থাকে। ডিপার্টমেন্ট সাধারণত 95% Questions গাণিতিক সমস্যার সমাধান টাইপের হয়ে থাকে।
ডিপার্টমেন্টের জন্য…….
সার্কিট অংশ:
বুয়েটে সাধারণত সার্কিট অংশ হতে সাধারণ সিরিজ প্যারালাল সার্কিট ,নোডাল এনালাইসিস, মেস এনালাইসিস, সার্কিট থিওরেমস বিশেষভাবে (থেভেনিনস এবং ম্যাক্সিমাম পাওয়ার ট্রান্সফার থিওরেম) হতে প্রশ্ন আসে।এসব প্রশ্ন সবসময় গাণিতিক সমস্যার সমাধান টাইপের হয়।
এসি সার্কিট হতে সাধারণত এসি সার্কিটের নরমাল ম্যাথ, পাওয়ার ফ্যাক্টর ইমপ্রুভমেন্ট, রিয়াল পাওয়ার এবং রিএকটিভ পাওয়ার বের করা,প্যারালাল লোডের ক্ষেত্রে কম্বাইন্ড পাওয়ার ফ্যাক্টর বের করা, Tow Wattmeter method, রেজোন্যান্স ,থ্রি ফেজ স্টার ডেল্টা সার্কিট ইত্যাদি চ্যাপ্টার থেকে ম্যাথ আসে।
যে বই হতে প্রিপারেশন নিতে হবে: Fundamentals of electric circuits.
By Alexander and sadiku (best)
মেশিন অংশ
মেশিন অংশে বেসিক টাইপের প্রশ্ন হয়।
সাধারণত ট্রান্সফরমারের ইফিসিয়েন্সি,ভোল্টেজ রেগুলেশন,পার ইউনিট রেজিস্ট্যান্স রিয়্যাকট্যান্স ইত্যাদি। থ্রি ফেজ ইন্ডাকশন মোটরের ক্ষেত্রে স্লিপ,রোটর কপার লস,কনভার্টেড পাওয়ার ইত্যাদি। সিনক্রোনাস জেনারেটর এবং মটর এর ক্ষেত্রে টর্ক অ্যাঙ্গেল, আর্মেচার কারেন্ট, পাওয়ার আউটপুট, টার্মিনাল ভোল্টেজ বের করা ইত্যাদি।ডিসি মোটর এর ক্ষেত্রে পরিবর্তনশীল ফ্লাক্সে মোটরের স্পিড এর পরিবর্তন, আর্মেচার রেজিস্ট্যান্স বের করা ইত্যাদি টাইপের ম্যাথ এসে থাকে। মাঝে মাঝে ডিসি জেনারেটর এর ক্ষেত্রে পরিবর্তনশীল লোডে ইফিসিয়েন্সি বের করা এই ধরনের ম্যাথ আসে।
যে বই হতে প্রিপারেশন নিতে হবে: Electric machinery fundamentals (Chapman)..must
Principals of electric machine (B.L. Theraja Or VK mehta)..(must)
Electric machinery (Charles I Herbert)…..(optional)
ইলেকট্রনিক্স অংশঃ
ইলেকট্রনিক্স অংশে সাধারণত ট্রানজিস্টর (BJT), মসফেট, p-n জংশন ডায়োড, জেনার ডায়োড, অপারেশনাল এমপ্লিফায়ার, ক্লিপিং-ক্লাম্পিং সার্কিট এর আউটপুট অংকন ইত্যাদি টাইপের প্রশ্ন হয়ে থাকে
যে বই হতে প্রিপারেশন নিতে হবে:
Microelectronic circuits (sedra-smith… (must)
এই বই থেকে ট্রানজিস্টর,ডায়োড এবং মসফেটের ম্যাথ করতে হবে
Electronics devices and circuits (Boylestad)
এই বই থেকে জেনার ডায়োড এবং ট্রানজিস্টর এর basic কিছু ম্যাথ করতে হবে
Fundamentals of electric circuits (Alexander and sadiku )
এই বই থেকে অপারেশনাল এমপ্লিফায়ার এর ম্যাথ করতে হবে
এছাড়া coughlin এবং gaykward এর বই থেকে কিছু বেসিক টাইপের যেমন পজিটিভ, নেগেটিভ, জিরো ক্রসিং ডিটেক্টর,ইন্টিগ্রেটর, ডিফারেন্সিয়েটর এর কিছু সার্কিট আঁকা শিখতে হবে।
পাওয়ার সিস্টেম অংশ:
যেহেতু কমবেশি সবগুলোই পাওয়ারের কোম্পানির পরীক্ষা। সুতরাং, এখান থেকে সাধারণত আপগ্রেড লেভেলের প্রশ্ন হয়ে থাকে। পাওয়ার সিস্টেম অংশের জন্য সাধারণত পার ইউনিট ভ্যালু বের করা, symmetrical এবং unsymmetrical Fault Analysis এর Math, (Positive,negative and zero sequence Figure related math),ফল্ট বাসের কারেন্ট, হেলদি ফেজের ভোল্টেজ, Y বাস, সিটির কারেন্ট রেশিও, রিলের সেকেন্ডারি কারেন্ট বের করা, সাপ্লাই সিস্টেম, পারফরম্যান্স অফ ট্রানস্মিশন লাইন ইত্যাদি টাইপের ম্যাথ করতে হবে। সেই সাথে ট্রান্সফরমারের ডিফারেন্সিয়াল প্রটেকশন, বাসবার প্রটেকশন,পাওয়ার সিস্টেম এর সিঙ্গেল লাইন ডায়াগ্রাম,132/33, 33/11 কেভি সাবস্টেশন এর ডায়াগ্রাম অংকন করা ইত্যাদি ডায়াগ্রাম আঁকা শিখতে হবে।
জেনারেশন কোম্পানির ক্ষেত্রে জেনারেশনের ম্যাথ, Alternators Differential protection Math(From Mehtas Book)পাওয়ার প্লান্ট এর লেয়াউট ডায়াগ্রাম ইত্যাদি।
যে বই হতে প্রিপারেশন নিতে হবে:
principles of power system(VK mehta)… (must)
Power system analysis( Stevenson jr.)…(must)
Modern power system analysis(Nagrath-kothari) ….. (Awesome book)
Electrical power system(Asfaq Hussein)…. পাওয়ার সিস্টেম এর উপর সবচেয়ে সহজ ভাষায় লেখা বই এটি। এছাড়াও আরো অনেক ধরনের বই আছে। জানার জন্য পড়তে পারেন।তবে জব প্রিপারেশন এর জন্য উপরোক্ত বইগুলো যথেট….😊
টেলিকমিউনিকেশন অংশ:
এই অংশের সাধারণত সবারই কিছু বেসিক প্রবলেম থাকে। আসলে বুয়েটের টেলিকমিউনিকেশন টপিকস টা অনেক বড়।
টেলিকমিউনিকেশন এর জন্য এমপ্লিচিউড মডুলেশন, ফ্রিকোয়েন্সি মডুলেশন, ডিজিটাল কমিউনিকেশন যেমন(ASK, FSK, PSK) পালসকোড মডুলেশন(Nyquist Formula), চ্যানেল ক্যাপাসিটি এবং ব্যান্ডউইথ বের করা, টাইম ডিভিশন মাল্টিপ্লেক্সিং ইত্যাদির ম্যাথ করতে হবে।
যে সকল বই দেখা যেতে পারে:
Modern digital and analog communication system (B.P. lathi)
Telecommunication part(EEE Job Preperation by Rony Parvej vai Guide)
Data communication and networking (Forouzan)(Less)
Communication systems … (sanjay sharma)***
Digital communication… wayne thomasi**
এছাড়া টেলিকমিউনিকেশনের উপরে কিছু sheet আছে (Rafiqul Rony)
কন্ট্রোল সিস্টেম:
কন্ট্রোল সিস্টেম থেকে মাঝে মাঝে প্রশ্ন আসে এই অংশ থেকে ডাম্পিং রেশিও বের করা,ন্যাচারাল ফ্রিকোয়েন্সি বের করা,ট্রান্সফার ফাংশন বের করা, সিস্টেমের স্ট্যাবিলিটি বের করা, গেইন ভেলু(K) বের করা, Block reduction, steady-state error বের করা এই টাইপের ম্যাথ আসে…
যে বই হতে প্রিপারেশন নিতে হবে:
Control system engineering….,(Norman Nise)
ডিপার্টমেন্ট এ সাধারণত উপর উল্লেখিত বিষয়গুলো হতে প্রশ্ন আসে। এছাড়া বিভিন্ন সময়ে ডিজিটাল ইলেকট্রনিক্স এবং পাওয়ার ইলেকট্রনিক্স হতেও প্রশ্ন আসতে দেখা যায়।
নন ডিপার্টমেন্ট অংশ:
এই অংশের জন্য বিসিএস প্রিলিমিনারি প্রিপারেশন নিতে পারলে সবচেয়ে বেটার হবে। এই অংশের জন্য mp3 সিরিজের বাংলা, বাংলাদেশ, আন্তর্জাতিক বিষয়াবলী, ইংরেজি এবং ম্যাথ রিভিউ বই ফলো করতে হবে। বুয়েটে মাঝেমাঝে ব্যতিক্রম টাইপের সাধারণ জ্ঞান দিয়ে দেয়। বেস্ট হবে যদি ব্যাংক জবের সাধারণ জ্ঞানের বই পড়তে পারেন। এগুলোর জন্য কারেন্ট অ্যাফেয়ার্স সাম্প্রতিক বিশ্ব এবং দৈনিক পত্রিকা পড়া যেতে পারে।
অ্যানালিটিক্যাল এর জন্য সাইফুরস ম্যাথ, mentors’ কিউ ব্যাংক এবং ইন্ডিয়াবিক্স ম্যাথ*** বইটা বেস্ট। পাশাপাশি mp3 MATH একটু দেখতে পারেন। এছাড়া অ্যাসিওরেন্স বিসিএস প্রিলিমিনারি ডাইজেস্ট বইটি short প্রিপারেশনের জন্য দেখা যেতে পারে। আসলে নন ডিপার্টমেন্টের অংশটা একদিনে Grow Up করা খুব ডিফিকাল্ট।এর জন্য ধীরে ধীরে পড়তে হবে।
পাওয়ার সিস্টেম রিলেটেড mcq জন্য পাওয়ার সেল,DPDC,DESCO,BREB,SREDA, PDB, PGCB ইত্যাদি ওয়েবসাইটগুলো ঘাটা যেতে পারে।
এবারে আসি ভাইবার কথায়…..
ভাইবার জন্য গুগল হচ্ছে বেস্ট। ইলেকট্রিক্যাল জব ইন্টারভিউ কোশ্চেন লিখে সার্চ দেন, বহুৎ বেসিক টাইপ প্রশ্ন পাবেন। ভাইভার জন্য সাধারণত সাবস্টেশন, ট্রানস্মিশন লাইন,ট্রান্সফর্মার, সার্কিট ব্রেকার, রিলে, সিটি, পিটি ইত্যাদি এবং বেসিক পাওয়ার সিস্টেম সম্বন্ধে ভালো ধারণা থাকতে হবে। ভাইভার জন্য OBJECTIVE ELECTRICAL ENGINEERING বইটা টেবিলে রাখতে পারেন……
উপরে উল্লেখিত বিষয়গুলো মূলত সহকারী প্রকৌশলীদের জব প্রিপারেশন এর জন্য। উপ সহকারী প্রকৌশলী দের এত ডিটেইলসে পড়ার দরকার নেই।
আসলে আমার এই লেখাটা তাদের জন্য, যারা পরিচিত বড় ভাইদের অভাবে সঠিক দিকনির্দেশনা পান না। আমি শুধু এই উদ্দেশ্যে লিখছি, যাতে আমার অভিজ্ঞতা, জ্ঞান দ্বারা কারো ন্যূনতম উপকার হয় এবং সেটা সম্পূর্ণই স্রষ্টার সন্তুষ্টির জন্য। ভুল হলে ধরিয়ে দিবেন।
পরিশেষ, সফলতার জন্য ধৈর্য সহকারে চেষ্টা করতে হবে। পরিশ্রম করলে একভাবে না একভাবে ফলাফল পাবেনই। শর্ত হচ্ছে, স্রষ্টার উপর বিশ্বাস রেখে, Hard & Soul Try করতে হবে।

লেখকঃ
প্রকৌশলী আতাউল করিম
সহকারী প্রকৌশলী (ওএন্ডএম) পাওয়ার গ্রিড কোম্পানি অব বাংলাদেশ (পিজিসিবি) লিমিটেড।