শিক্ষা মন্ত্রীর ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ারিং কোর্সকে চার থেকে তিন বছর করার প্রস্তাবে নিন্দার ঝড়

0

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিঃ ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ারিং কোর্সকে ৪ বছর থেকে হ্রাস করে ৩ বছর করার শিক্ষামন্ত্রীর বক্তব্যের তীব্র প্রতিবাদ জানিয়েছে আইডিইবি কেন্দ্রীয় ও কক্সবাজার জেলা নির্বাহি কমিটি। ১২ আগস্ট ২০২২ ঢাকা পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটে বাংলাদেশ পলিটেকনিক শিক্ষক সমিতি’র জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষ্যে আয়োজিত অনুষ্ঠানে শিক্ষামন্ত্রী অভিভাবকদের অর্থ সাশ্রয়ের খোঁড়া যুক্তি দেখিয়ে প্রচলিত ৪ বছর মেয়াদি ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ারিং কোর্সকে ৩ বছরে রূপান্তরের ঘোষনা দিয়েছেন।

বহু পরীক্ষা-নিরীক্ষা ও স্টাডির পর ২০০০সালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কর্তৃক চালুকৃত ৪ বছরের ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ারিং কোর্সকে ৩ বছরে নামিয়ে আনার কথা বলে কারিগরি শিক্ষার প্রতি চরম অবজ্ঞা-অবহেলার পরিচয় দিয়েছেন বলে আইডিইবি কেন্দ্রীয় কমিটি ও সাংগঠনিক জেলা সহ ৭১টি জেলা আইডিইবি তীব্র প্রতিবাদ জানিয়েছে। আইডিইবি’র কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক এক যৌথ বিবৃতিতে জানিয়েছেন- সরকার প্রায় একই সময়ে ৩ বছরের অনার্স কোর্স ৪ বছরে বৃদ্ধি করেছে। পাস কোর্সকে ২ বছর থেকে বৃদ্ধি করে ৩ বছর করেছে।

এসকল কোর্সের লক্ষ লক্ষ ছাত্রের অভিভাবকদের অর্থ সাশ্রয়ে ঐ সকল কোর্সের মেয়াদ ১ বছর হ্রাস করার কথা কেন বললেন না? অন্য দিকে দেশে ডিগ্রি ইঞ্জিনিয়ারিং এবং ডিগ্রি কৃষি কোর্সকে ৪ বছর থেকে কমিয়ে কেন ৩ বছর করা কথা বললেন না।

শিক্ষামন্ত্রী ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ারিং কোর্সকে ৩ বছরে হ্রাস করার মাধ্যমে দেশের মধ্যম স্তরের প্রকৌশল শিক্ষাকে ধ্বংস করে কার স্বার্থ রক্ষা করতে চাচ্ছেন, তা জাতি জানতে চায়। নাকি দেশের ৫ লক্ষাধীক ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার ও সাড়ে ৪ লক্ষাধিক পলিটেকনিক ছাত্র-ছাত্রীদের রাজপথে নামিয়ে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনাকে বিব্রত করতে চান?

ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ারিং কোর্স নিয়ে এমন ষড়যন্ত্র না করার জন্য এবং শিক্ষামন্ত্রীকে তাঁর বক্তব্য প্রত্যাহারের জন্য আইডিইবি আহ্বান জানিয়েছে। বরং বিগত ১০ বছর যাবত ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ারিং কোর্সে চরম শিক্ষক স্বল্পতা, ল্যাব-ওয়ার্কশপ সমস্যা, শিক্ষক-কর্মচারীদের সমস্যা সমাধানে এবং শিক্ষার মান উন্নয়নে মনোনিবেশ করার আহ্বান জানিয়েছে আইডিইবি’র সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক।