আ.লীগ-বিএনপির পাল্টাপাল্টি শোডাউনে যানজটে স্থবির রাজধানী

রাজধানীর রাজপথে একদিকে বিএনপি পদযাত্রা অপরদিকে আওয়ামী লীগের শান্তি শোভাযাত্রায় মঙ্গলবার (১৮ জুলাই) দুপুর থেকে যানজটে নাকাল হতে থাকে নগরবাসী। বিকেল গড়িয়ে সন্ধ্যা নামার সঙ্গে ধীরে ধীরে বেড়েছে যানজট।

যানজটের কারণে রাজধানীর গুলশান এলাকা স্থবির হয়ে যায়। মগবাজার থেকে হাতিরঝিল, বিজয় সরণি, কাওয়ানবাজার ফার্মগেট এলাকায়ও সৃষ্টি হয়েছে প্রচণ্ড যানজট।

মঙ্গলবার সাপ্তাহিক কর্মব্যস্ততার দিনে দুই দলের পাল্টাপাল্টি কর্মসূচির জন্যেই যানজটে নাকাল হয়েছে নগরবাসী।

বাংলানিউজের স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট ইসমাইল হোসেন জানিয়েছেন, যানজটে গুলশান এলাকা স্থবির হয়ে যায়।মগবাজার থেকে হাতিরঝিল ঢোকার পথেও প্রচণ্ড যানজট দেখা দিয়েছে।

করেসপন্ডেন্ট নিশাত বিজয় জানিয়েছেন, দুপুর সাড়ে ১২টার পরে থেকেই তীব্র যানজট দেখা গেছে মগবাজার থেকে মিন্টো রোড পর্যন্ত। সন্ধ্যা পার হলেও এ এলাকায় যানজট কমেনি।

অন্যদিকে রাজধানীর বিজয় সরণি, রাসেল স্কয়ার ও প্রগতি সরণিতে দিনের বেলায় যে যানজটের সৃষ্টি হয় তা রাতেও অব্যাহত রয়েছে।

শাহবাগ থেকে এলিফ্যান্ট রোড হয়ে সায়েন্সল্যাব এবং নিউমার্কেট থেকে মিরপুর রোড হয়ে ধানমন্ডি-৩২ নম্বর পর্যন্ত যে রাস্তায় আওয়ামী লীগের শান্তি শোভাযাত্রা বিকেল পৌনে ৬টায় শেষ হয়েছে। কিন্তু সাড়ে ৮টায় এ প্রতিবেদন লেখার সময়ও যানজট ছিল ভয়াবহ। খুবই ধীরগতিতে গাড়ি চলছিল। এ এলাকার ধানমন্ডির জিগাতলা রোড, পান্থপথ রোডেও যানজটে স্থবির হয়ে রয়েছে বিকেল থেকে রাত পর্যন্ত।

বাংলানিউজের সিনিয়র ফটো করেসপন্ডেন্ট জিএম মুজিবুর ও স্টাফ করেসপন্ডেন্ট রেজাউল করিম রাজা মিরপুরে বিএনপির পদযাত্রার সংবাদ সংগ্রহ করছেন।

দুপুর থেকে বিকেল পর্যন্ত মিরপুর এলাকার পরিস্থিতি সম্পর্কে তারা জানিয়েছেন, বিএনপির পদযাত্রার ফলে মিরপুর-১০ নম্বর থেকে ফার্মগেট অভিমুখে সব যানবাহনে বন্ধ হয়ে যায়। পাশাপাশি ১০ নম্বর গোল চত্বরের সবদিকেই তীব্র যানজট লক্ষ্য করা যায়।  শেওড়াপাড়ার কাজীপাড়ায় পথযাত্রা ঠিক বিপরীত পাশেও তৈরি হয়েছে যানজট।

মিরপুর ১০-১১-১২ ১৪ এলাকাতেও তীব্র যানজট ছড়িয়ে পড়েছে বলে জানান তিনি।

বাংলানিউজের স্টাফ করেসপন্ডেন্ট মাছুম কামাল পল্টন, গুলিস্তান ও মৎস্য ভবন এলাকার পরিস্থিতি সম্পর্কে জানিয়েছেন, প্রেসক্লাব-পল্টন এলাকায় গাড়ি ধীরগতিতে চলছে।

 

সূত্র – বাংলা নিউজ ২৪